সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাবান ১৪৪৫ হিজরি

সুবর্ণচরের সেই ধর্ষিতার পাশে ফখরুলসহ ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ

প্রভাতী ডেস্ক: ধানের শীষে ভোট দেয়ায় নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক গৃহবধূকে গণ ধর্ষণের ঘটনায় জাতির কাছে আওয়ামী লীগকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে দেখতে আসেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

এসময় মির্জা ফখরুল বলেন, নোয়াখালীর সুবর্ণচরে যে ঘটনা (এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ) ঘটেছে, এটা যারা ঘটিয়েছে এবং এর পেছনে যারা রয়েছে তাদের প্রত্যেকের বিচার করতে হবে। আওয়ামী লীগকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের নামে দেশে যে প্রহসন হয়েছে এটা দেশকে গণতন্ত্রহীনতা এবং অন্ধকার যুগে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে। এটা জনগণের সঙ্গে এক ধরনের প্রতারণা ও প্রহসন। জনগণ তা মেনে নেয়নি এবং মেনে নেবেও না। নির্বাচনের আগে ও পরে যে ধরনের নৃশংসতা হয়েছে তা ইতিহাসে বিরল।

এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী-৪ আসনে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য, দলের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, হারুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সমাজকল্যাণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, কেন্দ্রীয় নেতা রেহানা আখতার রানু, সৈয়দ আসিফা আশরাফী পাপিয়া উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য , একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেয়ায় নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ৩১ ডিসেম্বর চার সন্তানের এক জননীকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কয়েকজন কর্মী গণধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠে।

ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত মিলেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ মোট সাতজনকে আটক করা হয়েছে।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print