বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

অপরাধীরা আমার সহযোগিতা পাবে না, অনুসারী বলে প্রচারণা ইচ্ছাকৃত: শিক্ষা উপমন্ত্রী

প্রভাতী ডেস্ক শিক্ষা উপমন্ত্রী ও চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী) আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, সন্দেহভাজন কোনো ব্যক্তির সাথে সহযোগিতামূলক সংশ্লিষ্টতা না থাকলে অনুসারী বলে প্রচারণা সুনির্দিষ্টভাবেই ইচ্ছাকৃত।

তিনি বলেন, ‘কিছু প্রতিষ্ঠানে গুটিকয়েক ছাত্র/ব্যক্তি  দ্বারা সংগঠিত অপরাধমূলক ঘটনায় দেখা যাচ্ছে- সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের পরিচয় লেখার জায়গায় আমার অনুসারী বলে পরিচিত করা হচ্ছে।

জনপ্রতিনিধি হিসেবে যেহেতু রাজনীতিতে আছি, স্বাভাবিকভাবেই অনেকে আমার অনুসারী পরিচয়ে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা করবে। ব্যক্তিগত অনুসারী সৃষ্টির রাজনীতিতে আমি বিশ্বাস করি না এবং অনুসারী পরিচয়ে যারা অপরাধ করেছে বা করছে, তাদের পক্ষে থাকা বা সমর্থন আমি কখনই করিনাই এবং আগামীতেও করবো না’।

সম্প্রতি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি এ মন্তব্য করে আরও বলেন, ‘এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করতে পারবে না- কোনো সংঘাতমূলক ঘটনার সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্তে আমি কখনো হস্তক্ষেপ করেছি। তারপরেও দেখা যায়, পরিকল্পিতভাবে প্রচারণার জায়গায় অনেক ঘটনা ও সংঘর্ষ শেষে গণমাধ্যমে ঘটনায় সন্দেহভাজনদেরকে আমার অনুসারী হিসেবে আখ্যায়িত করে প্রচারিত হচ্ছে।

সন্দেহভাজন কোনো ব্যক্তির সাথে সহযোগিতামূলক সংশ্লিষ্টতা না থাকলে, অনুসারী বলে প্রচারণা সুনির্দিষ্টভাবেই ইচ্ছাকৃত’।

‘আমার নিজের পরিবারের সদস্য, বন্ধুবান্ধব, রাজনৈতিক সহকর্মী, ব্যবসায়িক বা পেশাগত অংশীদার, যেকোনো কেউ অপরাধজনক কাজ করলে অবশ্যই এর দায়িত্ব অপরাধকারী ব্যক্তির এবং আমার কাছ থেকে এর জন্য কোনো প্রকার সহযোগিতা তারা পাবে না।

তাই অনুরোধ করবো, যারা প্রচার এবং প্রকাশনা করছেন, সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্ত এবং যেকোনো অপরাধের শাস্তির জন্যই আমার অনুসারী বলে নাম দিলে দেখা যায়- দায়ী ব্যক্তিরা আরো বেশি প্রশ্রয় পায় এবং অপরাধকে রাজনৈতিক সংঘর্ষ বলে সামাজিকভাবে হালকা করার সুযোগ পায়’।

তিনি বলেন, ‘যেকোনো অপরাধের নিরপেক্ষভাবেই তদন্ত হোক এবং দায়ী ব্যক্তির আইনত শাস্তি হবে, এটিই আমাদের সকলের প্রত্যাশা। সরাসরি নির্দেশনা না থাকলে বা সংশ্লিষ্টতা না থাকলে, ব্যক্তির অনুসারী বলে প্রকাশ ও প্রচারণা নৈতিকভাবে সমর্থনযোগ্য নয়। এতে অপরাধের বিচারের বদলে তাকে প্রচ্ছন্ন সহযোগিতা করা হয়ে যায়’।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print