শুক্রবার, ১৪ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শুক্রবার, ১৪ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ শুক্রবার, ১৪ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

তৈয়্যবিয়া মাদ্রাসায় শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

আশেক এলাহী,কক্সবাজার: কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার অন্যতম দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (আন্জুমান-এ-রহমানিয়া আহমাদিয়া সুন্নিয়া ট্রাষ্ট কর্তৃক পরিচালিত) মাতারবাড়ী তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা’র ইবতেদায়ী সমাপনী ও জেডিসি পরীক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

অত্র মাদ্রাসার সম্মানীত সুপার মুহাম্মদ আবদুল হাকিম এর সভাপতিত্বে এবং শিক্ষক আবদুর রহমান রিটন এর সঞ্চালনায় শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্রভাবশালী সদস্য ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সম্মানিত সভাপতি মাস্টার রুহুল আমিন (বি.এ,বি.এড) বিশেষ অতিথি ছিলেন মহেশখালী উপজেলা ইসলামী ফ্রন্ট দক্ষিণ শাখার সভাপতি মাওলানা আবদুল মান্নান জিহাদী ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য (অর্থ) মাস্টার মীর কাসেম (বি.এ)। এছাড়া অনুষ্ঠানে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্টানে শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ শেষে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, শিক্ষার কোন বিকল্প নাই, যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। দেশ ও সমাজের উন্নতি সাধনের জন্য ভাল করে পড়াশুনার যেমন গুরুত্ব রয়েছে তেমনি সমাজের প্রতিও শিক্ষিত মানুষের দায়িত্ব রয়েছে।বিভিন্ন সামাজিক প্রতিবন্ধকতা দূর করা ও গ্রামীন নারীদের জীবন-মান উন্নয়নে নারী শিক্ষা সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। নারীর উপর পারিবারিক নির্যাতন ও শোষণের ঘটনা কমে যাচ্ছে। এছাড়া নারী শিক্ষার প্রসার এবং বাল্য বিবাহ কমাতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন রাজনীতি,
অর্থনীতি,গণমাধ্যম এবং সংস্কৃতিতেও নারীরা পিছিয়ে নেই।সব ক্ষেত্রেই নারীদের উপস্থিতি জানান দিচ্ছে। যথাযথ শিক্ষা ছাড়া নারীর ক্ষমতায়ন অসম্ভব তাই সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশ ও জাতির সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে হবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি মাদ্রাসা সুপার জনাব আব্দুল হাকিম তাঁর বক্তব্যে বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠের মান উন্নয়নে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।তাই পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ভাল ফলাফল আশা করা যায়।

অত্র মাদ্রাসার শিক্ষক জনাব আব্দুর রহমান রিটন জানান, এই বছর ইবতেদায়ী সমাপনীতে ৩৮ জন এবং জেডিসিতে ৩৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print