শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি

করোনা আক্রান্ত প্রথম চিকিৎসক মঈনের মৃত্যু, প্রধানমন্ত্রী এবং বিভিন্ন মহলের শোক !

প্রভাতী ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মঈন উদ্দীন মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি … রাজিউন)। দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্ত প্রথম চিকিৎসক হিসেবে তার মৃত্যু হল।

বুধবার(১৫ এপ্রিল) সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। তিনি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক। তার বয়স হয়েছিল ৫০-এর কাছাকাছি। স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (কন্ট্রোল রুম) ডা. আয়েশা আক্তার বুধবার সকালে গণমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করে সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। একই সঙ্গে তার পরিবারের দায়িত্ব নেয়ারও ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও শোক প্রকাশ করেছেন।

মরহুমের স্ত্রী একজন চিকিৎসক। তার নাম ডা. চৌধুরী রিফাত জামান। তিনি একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের ফিজিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। ডাক্তার মঈন মৃত্যুকালে দুটি ছেলে সন্তান রেখে গেছেন। প্রথম সন্তানের বয়স ১২ বছর এবং দ্বিতীয় সন্তানের বয়স ৭ বছর।

ডা. মঈন উদ্দীন ছাতক উপজেলার উত্তর খুরমা ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামের সন্তান। গরিব রোগীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধ দিতেন বলে এলাকায় তিনি গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তার মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ছাতকের গ্রামে গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে।

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে হাসপাতালের উপপরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এবিএম বেলায়েত হোসেন নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ডা. মঈন উদ্দীন আমাদের এখানে এসেছিলেন। গত তিন দিন তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল।
‘রেসপিরেটরি ফেইলিওরের’ কারণে আজ তার মৃত্যু হয়। ওসমানী মেডিকেল কলেজের ওই চিকিৎসকের নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত হয় ৫ এপ্রিল।
এরপর থেকে তিনি সিলেট শহরের হাউজিং এস্টেট এলাকায় নিজের বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন।

জানা গেছে, শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় ৭ এপ্রিল রাতে তাকে সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সিলেটের এ হাসপাতালেই কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়েছে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তার ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন পড়ে।

পরদিন বিকালে অ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। ওসমানী মেডিকেলের ওই চিকিৎসকই সিলেটে শনাক্ত হওয়া প্রথম কোভিড-১৯ রোগী।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে তিনি সংক্রমিত হন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। বুধবার করোনাসংক্রান্ত নিয়মিত বুলেটিনে তিনি বলেন, ‘রোগীকে চিকিৎসা দিতে গিয়ে ডাক্তার মঈন করোনায় সংক্রমিত হন।’

শ্বাসকষ্ট নিয়ে কুর্মিটোলা হাসপাতালে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। অধ্যাপক আজাদ বলেন, তার মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরই স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অবহিত করা হয়।

তিনি হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহ দেখেন এবং মরহুমের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। সবার পক্ষ থেকে সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

বাবা মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় মঈন : ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, গ্রামের বাড়ি ছাতক উপজেলার উত্তর খুরমা ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে মা-বাবার কবরের পাশে বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় মঈন উদ্দীনের লাশ দাফন করা হয়। জানাজায় শতাধিক মানুষ অংশ নেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইউএনও গোলাম কবির।

ডা. মঈনের বীরত্ব অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে -ওবায়দুল কাদের : ডা. মঈন উদ্দীনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ডা. মঈন উদ্দীন নিজের জীবনবাজি রেখে চিকিৎসাসেবা দিয়েছেন। তিনি বীরত্ব ও আত্মত্যাগের যে মহৎ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, বাঙালি জাতি তা চিরকাল স্মরণ করবে।

তিনি যুগ যুগ ধরে আর্তমানবতার সেবায় নিয়োজিতদের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দেশপ্রেমিক এ চিকিৎসকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা। এক বিবৃতিতে বুধবার সন্ধ্যায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে এবং প্রবাসে মৃত্যুবরণকারী সব বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন।

বিএসএমইউ ভিসির শোক প্রকাশ : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বুধবার এক বিবৃতিতে বলেন, ডা. মঈন উদ্দীন করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অকুতোভয় বীর সৈনিক। এমন মহান বীরের মৃত্যু নেই।

বিএমএর শোক : ডা. মঈন উদ্দীনের মৃত্যুতে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

পুলিশের শোক : ডা. মঈন উদ্দীনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে তার আত্মার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ। বুধবার সকালে পুলিশের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে এ শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন। বুধবার সংগঠনের সভাপতি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম এ শোক প্রকাশ করেন।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print