বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

রাইট টু ইনফরমেশন অ্যাক্টের প্রতি আমি পূর্ণাঙ্গভাবে বিশ্বাস করি

গণমাধ্যম তথ্য চাইলে যেকোনও প্রতিষ্ঠান তা দিতে বাধ্য: প্রতিমন্ত্রী

সাংবাদিক যে ইনফরমেশন চাইবে, সেটা যেকোনও প্রতিষ্ঠান দ্রুত গতিতে দিতে বাধ্য থাকবে

‘গণমাধ্যম যেন রাইট টু ইনফরমেশন অ্যাক্টকে আরও কার্যকরীভাবে ব্যবহার করতে পারে, সে ব্যবস্থা করা হবে’ বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত। তিনি বলেন, ‘গণমাধ্যম যে ইনফরমেশন চাইবে, যেকোনও প্রতিষ্ঠানতা দিতে বাধ্য থাকবে।’

শনিবার (৪ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সম্পাদক পরিষদ আয়োজিত ‘বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস ২০২৪’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত বলেন, ‘রাইট টু ইনফরমেশন অ্যাক্টের প্রতি আমি পূর্ণাঙ্গভাবে বিশ্বাস করি। গণমাধ্যম যেন রাইট ইনফরমেশন অ্যাক্টকে আরও কার্যকরীভাবে ব্যবহার করতে পারে, সেই ব্যবস্থা করা হবে। রাইট টু ইনফরমেশন অ্যাক্টের অধীনে কোনও গণমাধ্যম জনগণের পক্ষে যে ইনফরমেশন চাইবে, সেটা যেকোনও প্রতিষ্ঠান দ্রুত গতিতে দিতে বাধ্য থাকবে। এ ধরনের মানসিকতা তৈরি করার জন্য আমরা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে অরিয়েন্টেশন করবো।’

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘পরিবেশ বিপর্যয়ের সঙ্গে যারা জড়িত এবং যে সব সাংবাদিক এটি তুলে ধরেন, তারা আমাদের বন্ধু। যে রিপোর্টাররা সব তথ্য-উপাত্ত দিয়ে পরিবেশ নিয়ে রিপোর্ট করবেন, তাদেরকে আমাদের মন্ত্রণালয় থেকে পূর্ণাঙ্গ সাপোর্ট করা হবে।’

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন— সম্পাদক পরিষদের সভাপতি ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, সাধারণ সম্পাদক বণিক বার্তার সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, ফরিদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ কে আজাদ, প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত প্রমুখ।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print