শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৩ই শাবান ১৪৪৫ হিজরি

সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন সাবেক আইজি জাবেদ পাটোয়ারী

প্রভাতী ডেস্ক: সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন পুলিশের সদ্য সাবেক আইজি ড.মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। সোমবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. অলিউর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে আরও উল্লেখ করা হয়, এ নিয়োগের শর্তাবলী অনুমোদিত চুক্তিপত্র দ্বারা নির্ধারিত হবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের কর্মকর্তা ড.মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএমকে (বার) সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ এর ধারা অনুযায়ী তার অবসরোত্তর ছুটি তৎসংশ্লিষ্ট সুবিধা স্থগিতের শর্তে ১৫ এপ্রিল ২০২০ অথবা যোগদানের তারিখ থেকে পরবর্তী ৩ বছর মেয়াদে সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদানের নিমিত্তে তাঁর চাকরি পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে ন্যস্ত করা হলো।

২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি তিনি অতিরিক্ত আইজি এসবি থেকে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন। আইজিপি হিসেবে মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর আজ ১৩ এপ্রিল ছিল শেষ দিন। তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন বেনজীর আহমেদ। তিনি সর্বশেষ র‌্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পুলিশ কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বেনজীর।

বিসিএস পুলিশের ১৯৮৪ ব্যাচের কর্মকর্তা জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন ১৯৮৬ সালে। সম্মিলিত মেধা তালিকায় তার অবস্থান চতুর্থ এবং পুলিশের এই ব্যাচে প্রথম।

জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশ বাহিনীতে একজন মেধাবী ও পেশাদার কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত। প্রচারবিমুখ ও মৃদুভাষী এ কর্মকর্তা সুনামের সঙ্গে দীর্ঘদিন চাকরি করে আসছেন। এসবির প্রধান হিসেবে বর্তমান পদে একটানা ৯ বছর কর্মরত আছেন। এর আগে ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৯ সালের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত তিনি এসএস সিটির দায়িত্ব পালন করেন।

চাঁদপুর সদরে তার গ্রামের বাড়ি। বঙ্গবন্ধুর জেলজীবনের ওপর লেখা গ্রন্থ ‘কারাগারে রোজনামচার’ বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৪৮ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত এসবির রেকর্ড রুমে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে ৬৬ হাজার ক্লাসিফাইড গোয়েন্দা তথ্য সংরক্ষিত আছে। জাবেদ পাটোয়ারী এসবির শীর্ষ পদে আসার পর গুরুত্বপূর্ণ এই দলিলাদি বিশেষভাবে সংরক্ষণে বিশেষ উদ্যোগ নেন।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print