শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ শনিবার, ১৩ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি

করোনায় সেবা প্রদানকারী চিকিৎসকদের জন্য পুরষ্কার, অন্যদের জন্য শাস্তি- প্রধানমন্ত্রী !

প্রভাতী ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে যেসব চিকিৎসক জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন তাঁদেরকে পুরস্কৃত করা হবে আর যাঁরা কাজ করছেন না তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে  বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকাল ১০টায় গণভবন থেকে শুরু করা ভিডিও কনফারেন্সে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। ভিডিও বার্তায় কর্মকর্তাদের বিশেষ নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে যেসব চিকিৎসক জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন তাঁদেরকে পুরস্কৃত করা হবে। তাঁদের নামে পাঁচ থেকে ১০ লাখ টাকার স্বাস্থ্যবিমা করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া তাঁদের জন্য রয়েছে আরো পুরষ্কার। আর যাঁরা জাতির এই দুর্দিনে কাজ করছেন না, তাঁদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

চলতি মাসেই বাংলাদেশে করোনাভাইরাস বড় ধরনের ধাক্কা দিতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, যাঁরা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানুষের পাশে নেই তাঁদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তাঁরা আদৌ ডাক্তারি করতে পারবেন কি-না, তা আমি এখনই বলতে চাই না, তবে আমি তাঁদের কর্মকাণ্ড দেখতে চাই। তিনি বলেন, তাঁরা যদি এখনো ফিরে আসেন তবে আমি তাঁদের পরবর্তী তিন মাস দেখব। তাঁদের কাজের ওপর ভিত্তি করে ব্যবস্থার বিষয়টি বিবেচনা করব।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় প্রশাসনের মাঠ পর্যায়ের সদস্য, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, ত্রাণ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য কর্মচারীসহ যাঁরা কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন তাঁদেরকে ধন্যবাদ জানান। এর পরই তিনি পুরস্কারের কথা উল্লেখ করেন। কেবল চিকিৎসক নয়, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে যাঁরা কাজ করছেন তাঁদের সবাইকে পুরস্কৃত করা হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি এই কাজে যাঁরা  প্রত্যক্ষভাবে জড়িত তাঁদেরকে খালি মুখে ধন্যবাদ দেব না, আমি তাঁদেরকে পুরস্কৃতও করতে চাই। যেসব সরকারি চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য প্রত্যক্ষভাবে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের অন্যান্য কর্মচারী কোভিড-১৯ সংক্রমণের শুরু থেকে চিকিৎসা সেবা প্রদানে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করছেন, তাঁদের তালিকা করার জন্য এরইমধ্যে আমি নির্দেশ দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, তালিকা তৈরির কাজ শুরুও হয়ে গেছে। এ কাজে জড়িত চিকিৎসক নার্স স্বাস্থ্যকর্মী, মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য এবং প্রত্যক্ষভাবে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের অন্যান্য কর্মচারীদের জন্য আমরা বিশেষ ইন্সুরেন্সের ব্যবস্থা করছি। পদমর্যাদা অনুযায়ী তাঁদের নামে ৫ থেকে ১০ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্যবিমা আমরা করে দেব।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print