শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৩ই শাবান ১৪৪৫ হিজরি

ডা. শহীদ মিলন দিবস আজ

প্রভাতী ডেস্ক: আজ ২৭ নভেম্বর শহীদ ডা. মিলন দিবস। ১৯৯০ সালের এই দিনে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন চলাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এলাকায় স্বৈরশাসকের লেলিয়ে দেওয়া পুলিশের গুলিতে নিহত হন ডা. শামসুল আলম খান মিলন। সে হিসেবে চিকিৎসকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. মিলনের ২৯তম শাহাদাতবার্ষিকী আজ। তার রক্তদানের মধ্য দিয়ে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে তখন নতুন গতি সঞ্চারিত হয়। পরে ছাত্র গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে এরশাদ সরকারের স্বৈরশাসনের পতন ঘটে এবং গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং শহীদের পরিবারের পক্ষ থেকে দিবসটি উপলক্ষে কালো ব্যাজ ধারণ, শোক র‌্যালি, স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধার্ঘ্য, কবর জিয়ারত, দোয়াসহ নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সকাল সাড়ে ৯টায় ডা. মিলনের কবরে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করেছে। দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এক বিবৃতিতে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের জন্য দলের নেতাকর্মীসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বিএমএ’র কর্মসূচিতে রয়েছে-
সকাল ৮টায় কালো ব্যাজ ধারণ ও শহীদের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সাড়ে ৮টায় শহীদ ডা. মিলন স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বিশেষ অতিথি থাকবেন শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলনের মা সেলিনা আখতার, সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, জাসদ (আম্বিয়া) সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া এবং আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা। সভাপতিত্ব করবেন বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

এছাড়া বিএনপি, ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), যুবলীগ, যুব মৈত্রীসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠন নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করবে।

স্বৈরাচার আন্দোলনে নিহত ৪ শহীদ নূর হোসেন, ডা.শামসুল আলম খান মিলন, মোজাম্মেল এবং জেহাদের স্মৃতি হিসেবে সাবেক মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল নোমান চট্টগ্রামের কর্ণফুলীর তীরে প্রতিষ্ঠা করেন বাকলিয়া শহীদ এন.এম.এম.জে কলেজ।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print