সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাবান ১৪৪৫ হিজরি

চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ করোনা রেকর্ড : ২৪ ঘন্টায় ১৬ রোগী শনাক্ত !

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রামবাসীর জন্য আসলো আবারো দুঃসংবাদ। ২৪ঘন্টায় ১৬ করোনা রোগী শনাক্ত হলো। এটা চট্টগ্রামের জন্য সর্বোচ্চ রেকর্ড। করোনাভাইরাস আক্রান্ত এলাকায় নতুন করে যুক্ত হল নগরীর এনায়েতবাজার ও সীতাকুণ্ডের বড় কুমিরা এলাকা। তবে এনায়েত বাজারে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়া ২জনের মধ্যে একজন মারা গেছেন। দামপাড়া পুলিশ লাইন, আকবরশাহ, দক্ষিণ হালিশহর ও পাহাড়তলীতে আবার মিললো ২জন করে মোট ৮ জন করোনা রোগী। এছাড়া পটিয়া, বাঁশখালী ও লোহাগাড়ায় মিলেছে ১জন করে করোনা রোগী। চট্টগ্রাম সেনানিবাসের মিলিটারি হসপিটাল ও ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে পাওয়া গেছে ১জন করো করোনা শনাক্ত রোগী।

সবমিলিয়ে চট্টগ্রামে করোনাভাইরাস পরীক্ষার প্রধান পরীক্ষাগার ফৌজদারহাটের ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে গত ২৪ ঘন্টায় মোট ২৪৩টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রামেই পাওয়া গেল মোট ১৬ করোনা রোগী। চট্টগ্রামের বাইরে নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুরে মিলেছে আরো ৬ জন।

চট্টগ্রাম জেলার ১৬ জনের মধ্যে মহানগরের ১২ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৪ জন রোগী রয়েছেন। দিনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬ জন রোগীর মধ্যে দুজন নারী— দুজনই দক্ষিণ হালিশহরের। এদের বয়স ৩৪ ও ৭৫।

বাঁশখালীতে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়া রোগীটি একজন পুরুষ, তার বয়স ৪৫ বছর। এছাড়া লোহাগাড়া উপজেলায় ২৭ বছর বয়সী একজন পুরুষ, পটিয়া উপজেলায় ৪৫ বছর বয়সী একজন পুরুষ এবং সীতাকুন্ডের বড় কুমিরায় ৩০ বছর বয়সী একজন পুরুষ করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন। পটিয়ায় আক্রান্ত নতুন রোগীটি পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কাগজীপাড়ায় করোনাজয়ী মহিলার দেবর।

নগরীতে শনাক্ত হওয়া ১২ জনের মধ্যে রয়েছেন দামপাড়া পুলিশ লাইনের ২৫ ও ৩৫ বয়সী দুইজন পুরুষ। এছাড়া উত্তর কাট্টলীতে ৪০ বছর বয়সী একজন পুরুষ, আকবরশাহ থানায় ৫১ বছর বয়সী একজন পুরুষ, দক্ষিণ হালিশহর ৭৫ বছর ও ৩৪ বছর বয়সী দুই নারী, এনায়েত বাজার ২১ ও ৪৭ বছর বয়সী ২ পুরুষ, পাহাড়তলী থানার মৌসুমী আবাসিক এলাকায় ৪২ ও ৩৭ বছর বয়সী দুই পুরুষ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম জেলায় শনাক্ত হওয়া বাকি ২জনের একজন ফৌজদারহাটের বিশেষায়িত হাসপাতাল বিআইটিআইডি এবং অন্যজন চট্টগ্রাম সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির সোমবার রাত ১১টা নাগাদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নতুন করে শনাক্ত হওয়া এই ১৬ জনসহ চট্টগ্রামের দুই ল্যাবে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১০৫ জনে। বাইরে থেকে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে চিকিৎসাধীন আছেন আরো ৫জন। এছাড়া কক্সবাজার জেলার ২জন রোগী চট্টগ্রামের হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অন্যদিকে এদের মধ্যে ৭ জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৪ জন।

বিআইটিআইডি ও সিভাসুতে এ পর্যন্ত চট্টগ্রাম অঞ্চলের মোট তিন হাজার ৮৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে ১৬০ জনের শরীরে।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print