সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাবান ১৪৪৫ হিজরি

সৌন্দর্য্য ও রূপচর্চার যোগসূত্র (পর্ব-১)

সানজিয়া শাবনাম: “সৌন্দর্য্য” সবার প্রিয় একটি শব্দ। মানুষ সৌন্দর্য্যের পিছনে হাজারো প্রসাধনী ব্যবহার করে অনেক টাকা নষ্ট করে কিন্তু একটু সতর্কতা পারে কম খরচে সৌন্দর্য্যকে আরো সুন্দর করে তুলতে। চারপাশে হাতের নাগালে থাকা জিনিসগুলো দিয়ে বা খুব কম খরচে পারা যায় সৌন্দর্য্যকে ধরে রাখতে।
আজ আমি হাজির হয়েছি কিছু টিপস্ নিয়ে যা আপনার সৌন্দর্য্যকে নিখুতভাবে ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করবে। আসুন জেনেনি টিপসগুলো–

★”ঘুম” ক্লান্তি দূর করে,মরনের ভাই হলেও এটি কিন্তু সৌন্দর্য্যের মূলমন্ত্র। ক্লান্তি দূর করতে ৫-৬ঘন্টা ঘুম যথেষ্ট কিন্তু নিজের সৌন্দর্য্য ধরে রাখতে অবশ্যই আপনার ৭-৮ ঘন্টা ঘুমোতে হবে যা “বিউটি স্লিপ” হিসেবে গন্য করা হয়।

★”পানি”- হ্যাঁ পানি। পানির সেই সক্ষমতা রয়েছে যা আপনার সৌন্দর্য্যকে ভিতর থেকে বাড়িয়ে দিতে পারে আর তার সাথে সাথে শরীরের টক্সিন পস্রাবের মাধ্যমে বের করে দেয়। প্রতিদিন ৮ গ্লাসের বেশি পানি পান করা উচিৎ।সকালে খালি পেটে শুরু করতে হবে পানি পান করা।

★সকালের নাস্তায় রাখুন ডাবের পানি বা,লেবুর শরবত যা আপনাকে সাহায্য করবে সারাদিন সতেজ ও প্রাণবন্ত থাকতে। শুধু তাই নয়, নিয়মিত কচি ডাবের পানি ও লেবুর শরবত ত্বক ও শরীরের জন্য বেশ উপকারী। এই দুইটি পানীয় ত্বককে করে উজ্জ্বল ও মসৃণ। চুল পড়া কমাতেও ডাবের পানি বেশ উপকারী।

★বেশি বেশি “ভিটামিন সি” গ্রহন করুন। এটি আপনার শরীরের টক্সিন রিমুভ করে ও ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে। তার সাথে সাথে কোলেস্টেরল লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখে।

★মুখে ফেস ওয়াশ বা অন্য যেকোন জিনিস ব্যবহারের আগে হাত পরিস্কার করতে হবে। এতে হাতের জীবাণু মুখে লাগবে না, তাই মুখে বা চুলে হাত দেওয়ার আগে হাত পরিস্কার করে নিন।

★প্রতিদিন খুব ভোরে হাটার স্বভাব গড়ে তুলুন, এতে নির্মল ও পরিস্কার বাতাস ও অক্সিজেন আপনার ত্বকে পৌঁছাবে ত্বক হবে আরো সুন্দর।

★ইয়োগা বা যোগব্যায়াম খুব উপকারী। এর কিছু আসন ও মুদ্রা সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি,স্বাস্থ্য রক্ষা,ওজন নিয়ন্ত্রণ ও বিভিন্ন রোগ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। একোয়া প্রেসার পয়েন্ট ও খুব উপকারী।

★দুশ্চিন্তা ও অযথা ভাবনা সবার মাঝেই কম-বেশি রয়েছে যা কোন উপকারে আসে না বরং ক্ষতির কারন।
দুশ্চিন্তার কারণে মুখে ব্রণ,বলিরেখা,মেছতা ও নানারকম শারীরিক সমস্যা তৈরী হয়,তার সাথে ঘুমও নষ্ট হয় যা মোটেও মঙ্গলজনক নয়।

★প্রতিদিন রাতে ময়শ্চারাইজার ব্যবহার মুখের অনেক সমস্যা দূর করে।ময়শ্চারাইজারের সাথে ২-৩ ফোটা গোলাপ জল বেশ উপকারী।

★প্রতিদিন অবশ্যই সান স্ক্রিন লোশন ব্যবহার করতে হবে। রোদেলা – মেঘলা কোনটিতেই বাদ দেওয়া যাবে না।

★ রাতে অবশ্যই মেকআপ রিমুভ করতে হবে। মেকআপ রিমুভ না করে ভুলেও ঘুমোতে যাওয়া যাবে না।

★ সঠিক সময়ে খাওয়া দাওয়া করা খুব জরুরী।

★বেশি বেশি সবুজ শাক-সবজি ও বেশি বেশি ফল-মূল ত্বকের খাদ্য হিসেবে গন্য হয়। এই একটি স্বভাব পারে ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে এবং বৃদ্ধি করতে।

★ ব্রণের দাগ দূর করতে মধু ও দারুচিনি গুড়ো মিশিয়ে নিয়মিত দিনে একবার লাগান।

★ব্রণে হাত বা নখ লাগাবেন না ভুলেও। হাতের জীবাণু ব্রণে লেগে ব্রণকে আরো বড় করে দিবে। বার বার হাত লাগানোর কারনে ব্রণে আঘাত লাগে যার ফলে ব্রণ ব্যাথ্যা হয়ে যায় এবং পরবর্তীতে তার দাগ রেখে যায়।

★চুল ও মুখের ব্যায়াম নিয়মিত করতে হবে।

★ ত্বককে হিল করতে ও মসৃণ রাখতে সপ্তাহে ১-২বার মধু লাগাতে হবে।

★ফেস প্যাকে গোলাপজল অবশ্যই ব্যবহার করুন এটি মুখের পিএইচ(ph) ব্যালেন্স ঠিক রাখে।

★ত্বকের টোনার হিসেবে গোলাপ জল বা এলোভেরা জেল ব্যবহার করুন কারন প্রকৃতির সবকিছুতে উপকার আছে বেশি,অপকার রয়েছে কম।

পরবর্তীতে আরো নতুন কিছু টিপস নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হব।পরবর্তী টিপসগুলোর জন্য পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print