রবিবার, ১৬ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রবিবার, ১৬ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রবিবার, ১৬ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনালে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি ফ্রান্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপের একেবারে শেষ লগ্নে এসে দাঁড়িয়েছে। কাতারের মরুর বুকে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনালের টিকিট পেয়েছিল লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। এবার ২-০ গোলের ব্যবধানে মরক্কোর স্বপ্ন ভেঙে দিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নিলো বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স।

আগামী রোববার (১৮ ডিসেম্বর) ফিফা বিশ্বকাপের ২২তম আসরের শিরোপা নির্ধারণী ফাইনাল ম্যাচে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে ফ্রান্স। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

লাতিন আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনা কাতার বিশ্বকাপসহ তারা ছয়বার (১৯৩০, ১৯৭৮, ১৯৮৬, ১৯৯০, ২০১৪ ও ২০২২) ফাইনালে জায়গা করে নেয়। এর মধ্যে বিশ্বকাপের শিরোপা দুইবার উঁচিয়ে ধরেছিল লে আলবিসেলেস্তেরা। সর্বপ্রথম ১৯৭৮ সালে ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল আর্জেন্টিনা। এরপর ১৯৮৬ সালে ডিয়াগো ম্যারাডোনার একক নৈপুণ্যে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। এরপর ৩৬ বছর পেরিয়ে গেলেও শিরোপা স্বাদ পাওয়া হয়নি আকাশি নীল শিবিরের।

অন্যদিকে ইউরোপের দেশ ফ্রান্স এবারের বিশ্বকাপসহ চারবার (১৯৯৮, ২০০৬, ২০১৮ ও ২০২২) বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নেয়। যেখানে তারা ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপে বর্তমানে ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশমের অধিনায়কত্বে প্রথমবার বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে। এরপর ২০০৬ সালের ফাইনালে ইতালির কাছে টাইব্রেকারে পরাজিত হয় তারা। এরপর গত ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করে শিরোপা জেতে। ফলে ইতালি ও ব্রাজিলের পর টানা দুইবার বিশ্বকাপ জয়ের হাতছানি দিচ্ছে কিলিয়ান এমবাপ্পেদের সামনে।

গত বিশ্বকাপেই নকআউট রাউন্ডের শেষ ষোলোর ম্যাচে ফ্রান্সের ৪-৩ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছিল লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। সময়ের সেরা কিংবা তর্কসাপেক্ষে সর্বকালের সেরা মেসি কি অধরা বিশ্বকাপের শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে পারবে, নাকি আবারও ট্রফি উঠবে এমবাপ্পের হাতে। তা জানার জন্য অন্তত অপেক্ষা করতে হবে ১৮ ডিসেম্বরে লুসাইলের ফাইনাল পর্যন্ত।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print