বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহ আদালত পর্যন্ত গড়ায়

ফরিদপুরে প্রেম করে বিয়ে, বিচ্ছেদের পর এক মণ দুধ দিয়ে গোসল

গোসল শেষে সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে প্রেম করে বিয়ে করা স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর এক মণ দুধ দিয়ে গোসল করেছেন সিরাজ শেখ নামের এক যুবক। গোসল শেষে সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

শুক্রবার (১২ মে) বিকেলে উপজেলার চতুল ইউনিয়নের বাইখির চৌরাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সিরাজ শেখ উপজেলার বাইখির গ্রামের মজিবর শেখের ছেলে। তিনি পেশায় একজন অটোরিকশা মেকানিক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৩ বছর আগে একই গ্রামের আফসার শেখের মেয়ে ইতি বেগমের সঙ্গে প্রেম করে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন সিরাজ শেখ। তাদের ১১ বছরের একটি ছেলেসন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহের জেরে দুজনের বনিবনা হচ্ছিল না। বছরদুয়েক আগে স্বামীর অমতে স্ত্রী ইতি বেগম স্থানীয় একটি ফিজিওথেরাপি ক্লিনিকে চাকরি নেন। এ নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন স্বামী স্ত্রী।

দ্বন্দ্বের জেরে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি চলে যান ইতি বেগম। একপর্যায়ে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনদের বিরুদ্ধে আদালতে যৌতুক ও নারী নির্যাতনের মামলা করেন। দেড় বছর মামলা লড়ে তিন লাখ টাকার বিনিময়ে তাদের বিচ্ছেদ হয়। স্ত্রীকে তিন লাখ টাকা দিয়ে সন্তানকে নিয়ে বাড়ি চলে আসেন সিরাজ। বিচ্ছেদের পর এক মণ দুধ দিয়ে গোসল করে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুর জেলা পরিষদের সদস্য হাসান সিকদার বলেন, বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহের জেরে তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। এ নিয়ে আদালতে মামলা পর্যন্ত গড়ায়। পরে মামলা থেকে মুক্তি পেয়ে শুক্রবার বিকেলে এক দুধ কিনে সেই দুধ দিয়ে গোসল করেন সিরাজ শেখ।

সিরাজ শেখ বলেন, ‌‘বিয়ের পর থেকেই নিজেদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। দুই বছর আগে আমার অমতে সে স্থানীয় একটি ফিজিওথেরাপি ক্লিনিকে চাকরি নেয়। পরে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা যৌতুক ও নারী নির্যাতনের মামলা করেন। দেড় বছর ধরে মামলা চলে। তিন লাখ টাকার বিনিময়ে এর মীমাংসা হয়েছে। ঝামেলা থেকে মুক্তি পেয়ে দুধ দিয়ে গোসল করে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করেছি।’

Facebook
Twitter
LinkedIn
Telegram
WhatsApp
Email
Print